ইউএনও-ওসিদের রদবদল হাসি-তামাশার নাটিকা:রিজভী

0
77
রুহুল কবির রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশন ইউএনও ও ওসি বদলির নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী রোববার বিকালে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বলেন ইউএনও এবং ওসিদের বদলির সিদ্ধান্তটি আওয়ামীমনা ইউএনও-ওসিদের রদবদল মাত্র। সমগ্র প্রক্রিয়াটিও হাসি-তামাশার নজিরবিহীন হাস্যরসোদ্দীপক নাটিকা।তিনি বলেন, দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীরা গণহারে গ্রেফতার, বাড়ি বাড়ি তল্লাশি, আক্রমণ, হামলা, হত্যা ও জখমের এক ভয়ানক সহিংস পরিবেশের মধ্যে চরম ভয়-ভীতির মধ্যে দিনযাপন করছে, সেখানে নির্বাচন কমিশন কিসের প্রশাসনিক রদবদল করছে! বিএনপির নেতাকর্মীরা যখন ঘরছাড়া এলাকা ছাড়া- তখন পৃথিবীর সব যুগের নিকৃষ্টতম নির্বাচনের তামাশার আয়োজনের প্রতি জনগণের মোটেও কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই। রিজভী বলেন, জনগণের বিরুদ্ধে নির্বাচনী তফশিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশনই সংবিধানের সারবত্তা ভূলুণ্ঠিত করেছে। এখন আওয়ামী ঘরোয়া নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘনের কথা মানে জনগণের সঙ্গে কমিশনের ঠাট্টা করা।যে নির্বাচনে ৬০টিরও বেশি রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে না, সেই নির্বাচন নিয়ে এত তোড়জোর করতে কিসের কৃতিত্ব দেখাচ্ছেন কাজী হাবিবুল আউয়াল।রিজভী আরও বলেন,কাজী হাবিবুল আউয়াল কি জানেন না 

আলবদরের মতো এরা বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে লুটপাট করছে। পুরুষশূন্য বাড়িগুলো হামলা চালিয়ে ধ্বংস করছে। বাড়ির নারীদের অপদস্ত করছে। এমন পরিস্থিতিতে আতঙ্ক উদ্বেগ শুধু বিএনপির পরিবারগুলোতেই বিরাজ করছে না, সাধারণ ভোটাররাও অজানা আশঙ্কায় সন্ত্রস্ত হয়ে আছেন।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী জানান, শনিবার দুপুর থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত সারা দেশে ২৩০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা হয়েছে ১০টি। আসামি করা হয়েছে ৯৮৫ নেতাকর্মীকে।