বিনোদন ডেস্ক-

উঠো চিঠিতে হত্যার হুমকি পাওয়ার পর বলিউড তারকা সালমান খান ও তার বাবা চিত্রনাট্যকার সেলিম খানের বাড়িতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকার।

এর আগে রোববার সালমানের মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়িতে উড়ো চিঠি পাওয়ার ঘটনায় অজ্ঞানামাদের বিরুদ্ধে মুম্বাই পুলিশ মামলা করেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

এনডিটিভি লিখেছেন, চিঠি উদ্ধারের পর সালমান খান ও তার বাবার নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে; তার বাসার সামনের সিটিটিভি ভিডিও পরীক্ষা করা হয়েছে। মামলার তদন্তও ইতোমধ্যে শুরু করেছে পুলিশ।

ভোরে হাঁটতে গিয়ে উড়ো চিঠিটি পেয়েছেন সেলিম খান; সেখানে তার ও ছেলে সালমানের পরিণতি ‘সিধু মুসে ওয়ালা’র মতো হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে।

পাঞ্জাবি গায়ক ও কংগ্রেস নেতা সিধুকে গত মাসে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে; এক ফেইসবুক পোস্টে তাকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন কানাডাভিত্তিক গ্যাংস্টার গোলডি ব্রার।

চিঠির নিচে জি.বি ও এল.বি নাম পাওয়ার কথা জানিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো হুমকির পেছনে গোলডি ব্রার ও গ্যাংস্টার লরেন্স বিঞ্চোইয়ের হাত দেখছে।

মুম্বাই পুলিশ কমিশনার সঞ্জয় পাণ্ডে বলেন, “বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি। সালমানের খানের নিরাপত্তার জন্য বিষয়টি নিয়ে আর কোনো মন্তব্য করতে পারছি না।”

হুমকির ঘটনার জেরে গত বছর থেকে দিল্লি পুলিশের হেফাজতে থাকা লরেন্সকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি; যিনি ২০১১ সালে ‘রেডি’ সিনেমার শুটিংয়ের মাঝে সালমান খানকে হত্যার হুমকি দিয়ে আলোচনায় এসেছিলেন।

তবে সালমানকে পাঠানো চিঠিটি লরেন্স কিংবা গোলডি পাঠিয়েছেন নাকি তাদের নামে অন্য কেউ পাঠিয়েছে-তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।