নিজস্ব প্রতিবেদক:

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মাঝিনা গ্রামে নিজ কক্ষ থেকে এক কলেজছাত্রীর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৬ মে) রাতের কোনো এক সময় ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। 

নিহত কলেজছাত্রী আয়েশা সিদ্দিকা জয়পুরহাট সরকারি কলেজের স্নাতক শিক্ষার্থী।

স্থানীয়রা জানান, পাশের ঘরে থাকা ছোট দুই বোন সকালে বাইরে থেকে তাদের কক্ষের দরজা লাগানো দেখতে পায়। পরে তারা বিকল্প দরজা দিয়ে আয়েশার রুমে গিয়ে তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় দেখতে পেয়ে চিৎকার করে। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে আয়েশাকে মৃত দেখতে পেয়ে পুলিশ খবর দেয়। 

পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র রায় জানান, ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে প্রেমঘটিত কারণেও এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে। এই ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের আইনি প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।