{"uid":"DF6E8BA9-7159-46A9-A65E-230F5EC24571_1626525514486","source":"other","origin":"gallery","source_sid":"DF6E8BA9-7159-46A9-A65E-230F5EC24571_1626526052459"}

নিউজ ডেস্ক:

পরীক্ষা চলাকালীন পাশে বসা ‘বন্ধুদের’ উত্তর বলে না দেয়ায় এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ উঠলো সহপাঠীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া কাশীরামদাস বিদ্যায়তনে। পরীক্ষাকেন্দ্রের চত্বরের মধ্যেই ঘুষি মেরে নাক ফাটিয়ে দেয়া হয়েছে ওই পরীক্ষার্থীর। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

বুধবার দুপুরের এই ঘটনার পর কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। জখম ওই পরীক্ষার্থীর নাম রূপম ব্রহ্ম। কাটোয়ার একাইহাট এলাকার বাসিন্দা তিনি। জানা গিয়েছে, এদিন কাটোয়া শহরে কাশীরাম দাস বিদ্যায়তন পরীক্ষাকেন্দ্রে মাধ্যমিকের ঐচ্ছিক বিষয়ের পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণ পর থেকেই পাশে বসা কিছু পরীক্ষার্থী প্রশ্নের উত্তর জানতে চাইছিল। রূপম তখন উত্তর লিখতে ব্যস্ত। স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, তার পক্ষে এভাবে উত্তর বলা সম্ভব নয়। রূপমের একথা শোনার পর হলের মধ্যেই তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়া হয়। এরপর পরীক্ষা শেষে রূপম যখন বাড়ি ফিরছিল তখনই স্কুল চত্বরের মধ্যে তাকে ওই পরীক্ষার্থীরা ঘিরে ধরে এলোপাথাড়ি মারধর করতে থাকে। মারধরের জেরে গুরুতর আহত হয় রূপম।